You are here
Home > ঢাকার খবর > ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের নেতৃত্বের আলোচনায় মহিউদ্দিন, রাজ ও রিয়াজ

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের নেতৃত্বের আলোচনায় মহিউদ্দিন, রাজ ও রিয়াজ

মহিউদ্দিন, রাজ ও রিয়াজ

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তরের সম্মেলন হয়েছে গত ২৬ এপ্রিল। ইতিমধ্যে অনেক যাচাই বাচাই হয়েছে। এদিকে আবার নতুন চমকের ঘোষণা দিয়েছে হাইকমান্ড। অদৃশ্য সিন্ডিকেটের বলয় থেকে ছাত্রলীগকে মুক্ত করতেই এমন ঘোষণা এসেছে। সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এবার কমিটি গঠন করতে কিছুটা দেরি হলেও উঠে আসবে ত্যাগী ও পরিশ্রমীদের নাম। শীর্ষ নেতৃত্বে যারা আসবে তাদের মধ্যে ওয়াহিদ খান রাজের পাশাপাশি শোনা যাচ্ছে উত্তরের সাবেক সাধারন সম্পাদক মহিউদ্দিন আহম্মেদ ও আদাবর ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি রিয়াজ মাহমুদের নাম। মেধাবী এই তিন ছাত্রনেতাকে নগর উত্তর ছাত্রলীগের সম্ভাব্য নতুন নেতৃত্ব ভাবছে নীতিনির্ধারকদের অনেকে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠনটির শীর্ষ নেতৃত্বের আলোচনায় থাকা ওয়াহিদ খান রাজ ঢাকা কলেজের ছাত্র থাকাকালীন দীর্ঘদিন কলেজ ছাত্রলীগের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন এবং পরবর্তীতে তিনি ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগ এর সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। নগর কমিটিতে আসার আগে তিনি কলাবাগান থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্বে ছিলেন। এছাড়া তার নিজ জেলা পটুয়াখালী ছাত্রলীগের সদস্য ছিলেন। পরিচিত মহলে তিনি একজন সুবক্তা ও কঠোর পরিশ্রমী ছাত্রনেতা। আলোচনায় থাকা অপর দুই ছাত্রনেতার অন্যতম মহিউদ্দিন আহম্মেদ নগর কমিটির সাধারন সম্পাদক ছিলেন। আর রিয়াজ মাহমুদ একটি গুরুত্বপুর্ন থানা ইউনিটের প্রধান। তারাও অভিজ্ঞ ছাত্রনেতা হিসেবে পরিচিত। তবে বিশ্বস্ত সূত্রগুলো দাবি করছে, ওয়াহিদ খান রাজ পারিবারিক ঐতিহ্যগতভাবে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে ধারণ করেন এবং দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের সাথে ছোট পদে থেকে হাটি হাটি করে পথ চলার মাধ্যমে নিজেকে চিনিয়েছেন, তাই শীর্ষ নেতৃত্বের সুনজরে এসেছে তার নাম। যেহেতু আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে খাঁটি মাঠের কর্মীকেই সংগঠনের দায়িত্ব দিতে চান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তাই নেতৃত্ব নির্বাচনে নতুনত্ব আসার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

এদিকে অন্য একটি সূত্র থেকে জানা যায়, গত ৩০ বছর ধরে নগর ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্বে বৃহত্তর বরিশাল থেকে কেউ আসেনি। অথচ রাজধানী ঢাকাসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে বরিশালের অধিবাসীদের অবস্থান তূলনামূলক শক্তিশালী। সেই দিক বিবেচনা করে বরিশাল থেকে এবার নগর উত্তর এ শীর্ষ নেতৃত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। আর বরিশাল অঞ্চলের প্রসঙ্গ এলে ওয়াহিদ এর চাইতে সক্রিয় কেউ নেই বলেও সূত্রটি দাবি করে।

ওয়াহিদ খান রাজের ব্যাপারে ছাত্রলীগের সাবেক কয়েকজন নেতার সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে ও গতানুগতিক ক্ষমতার মোহ তার মধ্যে নেই। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করতে পারাই যাদের অহংকার রাজ তাদের অন্যতম। তার মতো সম্ভাবনাময় কাউকে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আনলে জাতির পিতার পবিত্র আমানতস্বরূপ রেখে যাওয়া ছাত্রলীগ সঠিক পথে গতিশীল থাকবে বলেই তাদের ধারনা।

Top