You are here
Home > বিনোদন > ঈশানার বিরুদ্ধে আরো দুটি মামলা

ঈশানার বিরুদ্ধে আরো দুটি মামলা

লাক্স সুন্দরী ঈশানার বিরুদ্ধে আরো দুটি মামলা হয়েছে। প্রথম মামলাটি ছিল মানহানি। এই মামলায় পরোয়ানা জারি হয়েছে। অন্যটি আইসিটি অ্যাক্টে আর তৃতীয়টি মামলাটি প্রক্রিয়াধীন। তিনিটি মামলাতেই ফেঁসে যেতে পারেন ঈশানা।

গত ৩ মার্চ উত্তরা থানায় আইসিটি অ্যাক্টে ঈশানার বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা করেছেন প্রযোজক ও অভিনেতা মারুফ খান প্রেম। মামলা নম্বর: ০২, তাং-০৩/০৩/২০১৬ ধারাঃ আইসিটি অ্যাক্ট ৫৭। এছাড়া আরও একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান প্রেম। সব মিলিয়ে মামলার জালে জড়াতে চলেছেন ঈশানা।

এর আগে গত ৩ ফেব্রুয়ারি মানহানির অভিযোগে ঢাকার সিএমএম আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন প্রেম। ওইদিন আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ঈশানাকে ২২ মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার জন্য সমন জারি করেন। গত মঙ্গলবার ঈশানা আদালতে হাজির না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে এ পরোয়ানা জারি হয়।

আইসিটি অ্যাক্টের মামলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মারুফ খান প্রেম বলেন, “মানহানির মামলা করার পরও ঈশানা আমার বিরুদ্ধে মুঠোফোনে ও ফেসবুকে বিভিন্ন আপত্তিকর মন্তব্য ছড়িয়েছে। অনেক বন্ধুবান্ধবের কাছে আমাকে জড়িয়ে ভুল তথ্য দিয়েছে। তাই আইসিটি অ্যাক্টে মামলা করতে বাধ্য হয়েছি।”

মারুফ আরও বলেন, “ফেসবুকে আমাকে নিয়ে যে স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছিল সেটাকেও এই মামলার নথিতে অন্তর্ভুক্ত করেছি। ওই স্ট্যাটাস দিয়ে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় করেছে ঈশানা। এছাড়া কয়েকদিন আগে এক বন্ধুর কাছে মুঠোফোনে আমার বিরুদ্ধে হুমকি দেয়া হয়। আমি নিশ্চিত এটিও ঈশানার কোনো কারসাজি। ওই মুঠোফোনের নম্বর এবং তথ্য সংগ্রহ করেছি। সবকিছু মিলে গেলেই আরও একটি মামলা করবো।”

এদিকে, আইসিটি অ্যাক্টের মামলা সম্পর্কে জানতে চাইলে ঈশানা বলেন, “এটি আপনার কাছ থেকে প্রথম শুনলাম। এর অাগে ভাসাভাসা শুনেছি থানায় নাকি মামলা হচ্ছে। আজ কনফার্ম হলাম মামলা নম্বরসহ। এ থেকেই বোঝা যায় প্রেমের অাসল উদ্দেশ্য কি? যে বিষয় নিয়ে একবার মানহানির মামলা হলো সেই বিষয় নিয়েই ফের আইসিটি অ্যাক্টে মামলা দিলো।”

ঈশানা আরও বলেন, “দু’একদিনের মধ্যে আদালতে যাবো। পরোয়ানা যেহেতু হয়ে গেছে তাই জামিন চাইবো। ইতোমধ্যে আইনজীবীদের সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তা সম্পন্ন করেছি। ”

হুমকির প্রেক্ষিতে প্রেম আরও একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন করছেন এমনটা বললে ঈশানা বলেন, “তাকে কোনো রকম হুমকি-ধামকি দেয়া হয়নি। এগুলো তার মনগড়া কাহিনী। আমার দিক থেকে ওভার কনফার্ম করতে পারি যে এসব কাজ আমার না।”

Top