You are here
Home > ঢাকার খবর > ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে সরকার পুড়ে ছাই হবে’

‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে সরকার পুড়ে ছাই হবে’

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল করা হলে প্রতিরোধের আগুনে সরকারকে জ্বলেপুড়ে ছাই হতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমদ।

রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিলের চক্রান্তের প্রতিবাদে মানববন্ধনে তিনি এই হুশিয়ারি দেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর ঢাকা মহানগর শাখা এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

মানববন্ধনে ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমদ বলেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ধর্মের প্রশ্নে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম সংবিধানে রাখা হোক, তা কোন রাজনৈতিক বা সামাজিক সংগঠনের দাবি নয়। এ দাবি এ দেশে বসবাস করা ৯০ শতাংশ মুসলমানের দাবি।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, কোরআন-সুন্নাহ বিরোধী আইন করবেন না বলে ওয়াদা করে ক্ষমতায় এসেছেন। এখন পুরো ইসলামকেই মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র করছেন।

তিনি বলেন, এ দেশে ৯০ ভাগ মানুষ মুসলমান। এর মধ্যে কিছু নাস্তিক-মুরতাদের দেয়া আগুনে সরকার পেট্রোল ঢাললে সেই আগুন প্রতিরোধ হিসেবে দেশের সর্বত্র ছড়িয়ে পরবে। প্রতিরোধের এই আগুন জ্বলে উঠলে সেই আগুনে সরকারকে জ্বলেপুড়ে ছাই হতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি আরও বলেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকলে বিশ্বের মধ্যে আমাদের মর্যাদা থাকবে। রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম একটি মীমাংসিত বিষয়। এদেশের মুসলমানদের প্রাণের সাথে মিশে আছে ইসলাম ধর্ম। তাই রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম নিয়ে কেউ কোন ষড়যন্ত্র করলে দেশবাসী সহ্য করবে না।

হিন্দু, বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ সম্পর্কে তিনি বলেন, তারা রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম সংবিধান থেকে বাতিলের জন্য রিটের নামে ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে তারা দেশকে একটি অকার্যকর ও জঙ্গিদেশে পরিণত করকে চায়।

এ সময় সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দীন পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। কর্মসূচি হলঃ ৩১ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিশাল সমাবেশ করা হবে।

আয়োজক সংগঠনের ঢাকা মহানগরীর সভাপতি অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দীন-এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন- সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা আবদুল কাদের, আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, প্রচার সম্পাদক আহমদ আবদুল কাইউম, শ্রমিকনেতা হারুনুর রশিদ, ছাত্রনেতা আজিজুল হক প্রমুখ।

Top