You are here
Home > আন্তর্জাতিক > কেরালার মন্দিরে ভয়াবহ আগুনে নিহত ১০৬ জন

কেরালার মন্দিরে ভয়াবহ আগুনে নিহত ১০৬ জন

কেরালার মন্দিরে ভয়াবহ আগুনে নিহত ১০৬ জন

ভারতের কেরালা রাজ্যের কোললাম জেলার পারাভুরের পুত্তিঙ্গল মন্দিরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১০৬ জনের। আহত ৩৫০ জন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে প্রশাসন।

রবিবার ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, ওই মন্দিরে একটা উত্সবকে ঘিরে ১০-১৫ হাজার মানুষ জমায়েত হয়েছিলেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতভর বাজি ফাটানোর লড়াই চলছিল। হঠাতই বাজির আগুনের ফুলকি গিয়ে পড়ে মন্দির চত্বরে জমা করে রাখা বাজির স্তূপে। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে গোটা মন্দির ও মন্দির চত্বরে। আতঙ্কে মানুষ দৌড়োদৌড়ি শুরু করে দেয়। ততক্ষণে আগুন ভয়াবহ আকার ধারণ করে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়। দৌড়োদৌড়িতে পদপিষ্ট হয়ে মারা যান আরও বেশ কিছু মানুষ।

প্রশাসন সূত্রে খবর, মৃতের সংখ্যা ৮৩। তা আরও বাড়তে পারে। তবে আগুন আয়ত্তে আনা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। বাজির বিস্ফোরণের তীব্রতা এত বেশি ছিল যে মন্দিরের ছাদের একাংশ ভেঙে পড়ে। ধ্বংসসূপের নীচে কেউ আটকে আছেন কিনা তা খতিয়ে দেখছে উদ্ধারকারী দল।

বিমানবাহিনীর চারটে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে উদ্ধারকাজ চালানো হচ্ছে। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, পুলিশ এবং দমকল জোরকদমে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। আহতদের শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী উম্মেন চণ্ডী ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। প্রয়োজনীয় সমস্ত রকম ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। মৃত ও আহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানান তিনি।  তিনি টুইট করেন, “মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জে পি নাড্ডাকে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখতে বলেছি।”

ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেছে কংগ্রেস। এ ঘটনায় মন্দির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।

Top