You are here
Home > আন্তর্জাতিক > যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপিতে সমকামী বিরোধী আইন পাশ

যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপিতে সমকামী বিরোধী আইন পাশ

যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপিতে সমকামী বিরোধী আইন পাশ

সমকামী বিরোধী একটি আইন পাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপি অঙ্গরাজ্যের সরকার। ধর্মীয় বিশ্বাসের ওপর ভিত্তি করেই করা হয়েছে আইনটি। ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোতে সমকামীদের যেকোনো ধরনের সেবা ও চাকরি দিতে অস্বীকার করার অধিকার দেয়া হয়েছে আইনটিতে।

মঙ্গলবার মিসিপির গভর্নর ফিল ব্রায়ান্ট প্রস্তাবিত বিলটিতে স্বাক্ষরের পরই তা আইনে পরিণত হয়। যদিও এর বিরোধীতা করেছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন। ব্রায়ান্ট বলেন, এই বিলটি অকপটে ধর্মীয় বিশ্বাস ও নৈতিকতাকে সংরক্ষণ করবে।

তবে বিলটির বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীরা বলছেন, বিলটির মাধ্যমে সমকামী, উভকামী এবং তৃতীয় লিঙ্গের লোকদের প্রতি বৈষম্য প্রদর্শনের বৈধতা দেয়া হলো।

সমকামীদের বিষয়ে বর্তমানে একই ধরনের আইন পাশ করছে যুক্তরাষ্ট্রের অন্য অঙ্গরাজ্যগুলোও। সম্প্রতি মার্কিন অঙ্গরাজ্য নর্থ ক্যারোলিনায়ও একই রকম একটি আইন পাশ করা হয়েছে। এতে সমকামীদের সুরক্ষা সংক্রান্ত বিষয়টি বাতিল করা হয়েছে এবং তৃতীয় ‍লিঙ্গের লোকদের ক্ষেত্রে লিঙ্গের ভিত্তিতে সেখানে আলাদা গোসলখানার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তবে এ আইনটি বাতিলের জন্য নর্থ ক্যারোলিনার গভর্নর প্যাট ম্যাকক্রোরির কাছে আবেদন জানিয়েছেন অনেক ব্যবসায়ী এবং প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা। গত গ্রীষ্মে সমকামী বিবাহকে বৈধ ঘোষণা করে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের রায় দেয়ার পর বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের দাবির মুখে ধর্মভিত্তিক আইন পাশ করছে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য।

আইনটিতে স্বাক্ষর করার পর ব্রায়ান্ট এক টুইটার বার্তায় জানান, বিলটি মার্কিন সংবিধানের অধীনে নাগরিকদের কোনো অধিকার ক্ষুণ্ন করবে না। এটা করা হয়েছে জনগণের জীবনের ওপর সরকারের হস্তক্ষেপ বন্ধ করতে।

আইন অনুসারে, গির্জা, ধর্মীয় দাতব্য প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিমালিকাধীন প্রতিষ্ঠানগুলো সমকামীদের যেকোনো সেবা দিতে অস্বীকার করতে পারবে। সরকারকে অবশ্য তাদের সেবা দিতে হবে। তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে তা কার্যকর হবে না। এছাড়া লিঙ্গের ওপর ভিত্তি করে কেউ গোসলখানা বা জামাকাপড় পরিবর্তনের আলাদা কক্ষ করতে চাইলে সেও তা করতে পারবে।

উল্লেখ্য, খ্রিস্টান ধর্মে সমকামিতা নিষিদ্ধ। একে অস্বাভাবিক ও ঘৃণ্য বলে মনে করে খ্রিস্টান ধর্ম। এছাড়া ইসলাম ও ইহুদি ধর্মেও সমাকমিতা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই তিনটি ধর্মেই সমকামিতাকে ভয়ানক পাপ বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

Top