You are here
Home > আন্তর্জাতিক > বিক্ষোভকারীদের ভাড়াটে বলে মিডিয়াকে দুষলেন ট্রাম্প

বিক্ষোভকারীদের ভাড়াটে বলে মিডিয়াকে দুষলেন ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। নিউ ইয়র্ক, শিকাগোসহ অন্তত সাতটি বড় শহরে শুরু হওয়া ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ দ্বিতীয় দিনে আরো জোরালো হয়ে অন্তত ২৫টি শহরে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্প এই বিক্ষোভকে খুবই অন্যায্য এবং বিক্ষোভকারীদের ভাড়াটে বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি বিক্ষোভে উসকানি দেয়ার জন্য মিডিয়াকে দোষারোপ করেছেন।

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) এক টুইটার বার্তায় তিনি এ দোষারোপ করেন।

টুইটারে ট্রাম্প বলেন, “সম্প্রতি একটি সফল প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। এখন পেশাদার বিক্ষোভকারীরা মিডিয়ার মদতে বিক্ষোভ করছেন, এটা খুবই অন্যায়!”

অবশ্য মিডিয়ার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের অভিযোগের আঙুল এবারই প্রথম উঠলো না। নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময়ও মিডিয়াকে গালমন্দ করেন তিনি। এমনকি মিডিয়াকে নিজের প্রতিপক্ষ বলেও উল্লেখ করেন।

ট্রাম্পের মালিকানাধীন বিভিন্ন স্থাপনার সামনেও চলছে বিক্ষোভ। ইতোমধ্যে গ্রেফতার হয়েছে বেশ কয়েকজন।

ক্যালিফোর্নিয়া শহরে প্রায় ৪০টি অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার দুপুরে ২০০-এর বেশি বিক্ষোভকারী ম্যানহাটনের ইউনিয়ন স্কয়ার এলাকা থেকে ওয়াশিংটন স্কয়ার পার্ক এলাকার দিকে মিছিল নিয়ে এগিয়ে যায়। এ সময় তারা ‘ট্রাম্প ও পেন্সের বোধশক্তি নাই’ লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করে। পরে পুলিশ তাদের আটকে দেয়।

নিউ ইয়র্কে ট্রাম্পের মালিকানাধীন ট্রাম্প টাওয়ারের সামনে বিক্ষোভে অংশ নেয় প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ। এ সময় বিক্ষোভে পপ তারকা লেডি গাগা উপস্থিত ছিলেন। তিনি এবারের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের সমর্থক ছিলেন।

অকল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, একদল বিক্ষোভকারী কয়েকটি ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে বেশ কিছু জায়গায় ভাঙচুর করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে ক্যালিফোর্নিয়ার প্রায় ৪০টি জায়গায় লাগানো আগুন নেভায় স্থানীয় দমকল কর্মীরা। এ সময় বিশৃঙ্খলা তৈরি, পুলিশ কর্মকর্তাদের হয়রানি করা, বেআইনি কর্মকাণ্ড সংঘটিত করা ও অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র বহনের অভিযোগে অন্তত ৩০ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

Top