You are here
Home > প্রবাস > সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফোবানা সম্মেলন ২০১৬

সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফোবানা সম্মেলন ২০১৬

সেপ্টম্বরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ফোবানা সম্মেলন ২০১৬

রফিকুল ইসলাম আকাশ, যুক্তরাষ্ট্র: গত ২০শে আগষ্ট, ২০১৬ শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডস্থ “ডেরা” রেষ্টুরেন্টে ফোবানা সম্মেলন ২০১৬-এর হোষ্ট অর্গানাইজেশন বাগডিসি/ফোবানা সম্মেলন হোষ্ট কমিটি এবং বাকোডিসি’র যৌথ উদ্যোগে নতুন প্রত্যয় নিয়ে যৌথভাবে ফোবানা সম্মেলনে কাজ করার লক্ষ্যে এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বাগডিসি/ফোবানা সম্মেলনের হোষ্ট কমিটি এবং বাকোডিসি’র সকল নেতা-কর্মীবৃন্দসহ ওয়াশিংটন মেট্রো এলাকার বাঙ্গালী কমিউনিটির অনেক সাংগঠনিক কর্মী এবং নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন এই ঐতিহাসিক তাৎপর্যপূর্ন সভায়। সভার প্রারম্ভেই ফোবানা হোষ্ট কমিটির প্রেসিডেন্ট জনাব মোহাম্মদ আলমগীর,  কনভেনর জনাব এটিএম আলম এবং সদস্য সচিব, নুরুল আমিন নুরু সবাইকে এই গুরুত্বপূর্ন সভায় স্বাগতম জানান এবং সভায় উপস্থিত হয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।  সভাচলাকালীন সকল নেতা-কর্মীদের বক্তব্যে ওয়াশিংটন প্রবাসী সকল বাংলাদেশী ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে ফোবানাকে এবং পাশাপাশি আমাদের সমাজকে প্রগতি ও উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিতে প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

বাকোডিসি’র নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেয়ার সময় বাকোডিসি’র সভাপতি জনাব কাজী এম, রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক তালহা রহমান এই যৌথ উদ্যোগকে স্বাগতম জানিয়ে আসন্ন ফোবানা সম্মেলনে একাত্মতা ঘোষনা করেন এবং সম্মেলন পরবর্তী ওয়াশিংটন মেট্রো এলাকার বাংলাদেশী কমিউনিটির যে কোন কল্যানমূলক কাজে সহযোগিতা করার পূর্ন আশ্বাস প্রদান করেন। এছাড়া বাকোডিসির পক্ষে বক্তব্য দিতে গিয়ে জনাব এম,জি,এম হোসেন উল্লেখ করেন যে, এই যৌথ উদ্যোগে ত্যাগ স্বীকার করে বাকোডিসি ফোবানার সাথে একাত্মতা ঘোষনা করছে।  ফোবানা হোষ্ট কমিটির প্রেসিডেন্ট, জনাব মোহাম্মদ আলমগীর বাকোডিসি’র সকল নেতা-কর্মীকে অভিনন্দন জানান তাদের আয়োজিত অনুষ্ঠান প্রত্যাহার করে, ত্যাগ স্বীকার করে ওয়াশিংটনের প্রবাসী বাঙালিদের বৃহত্তর স্বার্থে ফোবানা হোষ্ট কমিটির সাথে একাত্বতা ঘোষনা করে ফোবানার হাতকে আরও শক্তিশালী করার জন্য।  তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, এটা কারো একার বিজয় নয়, এটা কোন ব্যক্তি বা সংগঠনের বিজয় নয়- এটা ওয়াশিংটনবাসী সকল বাংলাদেশীদের বিজয়, আর এই একতার ভিত্তিতেই আমরা আগামীতে আরও অনেক কাজ করতে সক্ষম হবো যদি আমরা একসঙ্গে কাজ করার জন্য এমনিভাবে ঐক্যবদ্ধ থাকতে পারি।

একসঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে ফোবানা সম্মেলনকে সফল করার জন্য সবাই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন এবং শুধু ফোবানাই নয়, ফোবানা পরবর্তী সময়েও এই একতা এবং ঐক্যবদ্ধ সমাজ উন্নয়ন প্রয়াস অব্যাহত রাখার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন সকল নেতা-কর্মীবৃন্দ। উল্লেখ্য,  বাকোডিসি এবং বাগডিসি/ফোবানা হোষ্ট কমিটির এই যৌথ উদ্যোগের এই প্রয়াস বাস্তবায়নের পেছনে ফোবানার সাইন্স এন্ড টেকনলজি-র চেয়ারপারসন, জনাব ডঃ গোলাম মাওলার বিশেষ অবদান ছিল বলে জানান ফোবানা হোষ্ট কমিটির প্রসিডেন্ট, জনাব মোহাম্মদ আলমগীর।  বাগডিসি/ফোবানা হোষ্ট কমিটি ওয়াশিংটন প্রবাসী সকল বাংলাদেশীদের মধ্যে একতার বন্ধন দৃঢ় করে একটি ইতিহাসের সৃষ্টি করেছে বলে সবাই মনে করেন এবং তা আমাদের সমাজের আগামীর পথচলায় ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসে পাথেয় ও অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। বাগডিসি/ফোবানা হোষ্ট কমিটি এবং বাকোডিসি’র এই যৌথ উদ্যোগকে সানন্দে স্বাগত জানিয়ে তাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন ফোবানা এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান, জনাব নাহিদ চৌধুরী এবং এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারী, জনাব আজাদুল হক। তারা ওয়াশিংটন প্রবাসী সকল নেতা-কর্মীদের যৌথভাবে ফোবানার অগ্রযাত্রাকে শক্তিশালী করার জন্য সবাইকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং উত্তর আমেরিকায় অবস্থানরত বাংলাদেশী কমিউনিটির উন্নয় ভাবনায় আগামীতেও ফোবানার সাথে থাকার জন্য অনুরোধ জানান।

প্রসঙ্গত, সেপ্টম্বরের ২,৩ ও ৪ তারিখে ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠিত হবে ফোবানা সম্মেলন।

Top