You are here
Home > কৌতুক > এবারের বিষয়: ফেসবুক কৌতুক

এবারের বিষয়: ফেসবুক কৌতুক

ফেসবুক কৌতুক

♦ ফেসবুক বন্ধ কোন চোখে
প্রথম ব্যক্তি : ফেসবুক বন্ধের ব্যাপারটা আপনি কোন চোখে দেখেন?
দ্বিতীয় ব্যক্তি : ক্যান, উভয় চোখে দেখি! কারণ আমার কোনো চোখেই সমস্যা নেই।

♦ ফেসবুক খোলার ব্যাপারে মতামত
প্রথম ব্যক্তি : ফেসবুক খোলার ব্যাপারে আপনার মতামত কী?
দ্বিতীয় ব্যক্তি : আমার মতামত হলো, যারা বন্ধ করেছেন তারাই ফেসবুক খুলবেন। এই ফাঁকে আমি সময়মতো কিছু দিন ঘুমিয়ে নিই।

♦ ফেসবুক বন্ধে মর্জিনার আগমন
প্রথম বন্ধু : ফেসবুক বন্ধের কারণে লাইক, কমেন্ট করতে পারছি না। কী যে যন্ত্রণা!
দ্বিতীয় বন্ধু : ফেসবুক বন্ধ তাই জানালা দিয়ে আনমনা হয়ে তাকিয়ে থাকতে থাকতে আমি কিন্তু পাশের বাসার মর্জিনাকে লাইক করে ফেলেছি। কমেন্টটাও অচিরেই হয়ে যাবে।

♦ ফেসবুকে কারা বেশী বোকা?
১ম বান্ধবী: তুইতো অনেক দিন থেকেই ফেসবুক ব্যবহার করছিস ?
২য় বান্ধবী: হ্যঁ, বেশ কয়েক বছর ধরেই ব্যবহার করছি, কেন কি হয়েছে?
১ম বান্ধবী: আচ্ছা বলতো,ফেসবুকে কারা বেশি বোকা?
২য় বান্ধবী: লোকে তো বলে, মেয়েরাই বেশি বোকা
১ম বান্ধবী: আরে না, ছেলেরাই বেশী বোকা
২য় বান্ধবী: কি বলিস ?
১ম বান্ধবী: কেন বিশ্বাস হয়না, দেখিস না, ছেলেরা যতই ভাল পোষ্ট দিকনা কেন, কোন ছেলেই লাইক বা কমেন্ট করেনা, অথচ মেয়েরা হ্যলো ,হাই পোষ্ট দিলেই ছেলেদের লাইক, কমেন্টের অভাব নেই।
২য় বান্ধবী : তুইতো সঠিক বলেছিস , আমিতো তা ভেবে দেখিনি ।
১ম বান্ধবী : শুধু কি তাই, ছেলেরাও যদি মেয়ের নামে আইডি খুলে পোষ্ট দেয়, সেখানেও একই অবস্থা । এবার বল কারা বোকা বেশি ?
২য় বান্ধবী: এক দম ছেলেরাই বেশি বোকা ,আমরা নাচাই, ওরা নাচে ।

♦ ফেসবুক বন্ধে মাথাব্যথা
প্রথম বন্ধু : দাঁত বের করে হাসছিস! ফেসবুক বন্ধে তোর কোনো মাথাব্যথা নেই?
দ্বিতীয় বন্ধু : না। কারণ প্রতিদিন সকালে আমি একটা ব্যথানাশক ট্যাবলেট খাই।

♦ ফেসবুক ফ্রেন্ড
হঠাৎ বাসায় কলিংবেল।
গৃহকর্তী গেলেন দরজা খুলতে, খুলেই তিনি অবাক্, এক কাজের বুয়া টাইপের মহিলা দাড়িয়ে আছে দরজায়্।
গৃহকর্তীঃ জি বলুন্, আপনি কে?
মহিলাঃ আপা আমি আপনার ফেসবুক ফ্রেন্ড লিস্ট এর সুমাইয়া কুলসুম ।গত কালকে আপনি একটা স্ট্যাটাস দিলেন না যে আপনার বাসার কাজের বুয়া চলে গেছে, তাই সেটা দেখার পর আমি আমার আগের বাড়ির কাজ ছেড়ে আপনার বাড়ি চলে আইলাম । কারণ হাজার হলেও আপনি আমার ফ্রেন্ড্। এখন থেকে আমি আপনার বাড়ি তেই কাজ করুম আর একসাথে ফেসবুক ইউজ করুম্, আপা রাজি আছেন তো?
গৃহকর্তীঃ তুমি বাসার ঠিকানা কোথায় পাইলা?
মহিলাঃ জি আপা, আপনার ছেলে দিছে, ও আবার আমার মাইয়ার ফেসবুক ফ্রেন্ড।

♦ একদিন খুলবেই
প্রথম ব্যক্তি : জ্যোতিষী বাবা, ফেসবুক বন্ধ। খুলবে কবে বলতে পারেন?
দ্বিতীয় ব্যক্তি : ধৈর্য ধর, আমি বন্ধ চোখে দেখতে পাচ্ছি ফেসবুক একদিন না একদিন খুলবেই।

♦ বুদ্ধিমানের পাসওয়ার্ড
বল্টু সব সময় তার ফেসবুক আইডির পাসওয়ার্ড ভুলে যায়। তাই তাকে প্রতিদিন নতুন ফেসবুক আইডি খুলতে হয়।
তাই সে খুব করে মাথা খাটিয়ে একটি বুদ্ধি বের করল পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য। সে এমন একটা পাসওয়ার্ড দিল যেটা ভুলে গেলে ফেসবুক তাকে নিজেই মনে করিয়ে দেয় যে, পাসওয়ার্ডটি কি?
তার সেই পাসোয়ার্ড টি হলো :-“Incorrect”
তাই যখনি সে ভুল পাসওয়ার্ড দিয়ে ফেসবুক লগইন করতে যায় তখনই ফেসবুক ম্যাসেজ দেয় “Your Password Is Incorrect”
আর তখনই বল্টুর মনে পড়ে যায় তার পাসওয়ার্ড

♦ ফেসবুক বন্ধ তাই পার্লারে যাই না
প্রথম ব্যক্তি : কি গো মতিন ভাই, আপনি তো আগের মতো পার্লারে আসেন না।
দ্বিতীয় ব্যক্তি : ফেসবুক বন্ধ, সেলফি বন্ধ, চুলের স্টাইলও বন্ধ। সুতরাং পার্লারে আসাও বন্ধ। বোঝা গেল ব্যাপারটা?

♦ হ্যাকারকে চাকরী
ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ একদিন ঘুম থেকে উঠে আবিষ্কার করলেন, কেউ একজন তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছে!
তৎক্ষণাৎ তিনি ফোন করলেন নিজ অফিসের এক কর্মচারীকে। ‘কত বড় সাহস! আমার আ্যাকাউন্ট হ্যাক করে! এক্ষুনি খুঁজে বের করো ওই হ্যাকারকে। এক ঘণ্টার মধ্যে আমি ওর নাম- ঠিকানা জানতে চাই।’চিৎকার করে বললেন জুকারবার্গ।
ভয়ে কাঁপতে কাঁপতে বলল কর্মচারী, ‘অবশ্যই, স্যার। আমরা এক্ষুনি তাকে খুঁজে বের করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করছি।’
জুকারবার্গ: পুলিশের হাতে তুলে দিতে কে বলল! ওকে বলো, আমার কোম্পানিতে ভালো বেতনে ওর জন্য একটা চাকরি আছে!

Top