You are here
Home > আন্তর্জাতিক > থাই বৌদ্ধ মন্দিরের ফ্রিজে ৪০টি বাঘের বাচ্চা

থাই বৌদ্ধ মন্দিরের ফ্রিজে ৪০টি বাঘের বাচ্চা

থাই বৌদ্ধ মন্দিরের ফ্রিজে ৪০টি বাঘের বাচ্চা

থাইল্যান্ডের টাইগার টেম্পল বলে খ্যাত বৌদ্ধ মন্দিরের হিমাগার থেকে ৪০টি মৃত বাঘশাবক উদ্ধার করা হয়েছে। এই মন্দিরের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী পাচার ও নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছিল।

সোমবার, পুলিশ ও কর্মকর্তারা মন্দির থেকে জীবন্ত বাঘ সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ নেয়। গণমাধ্যমকর্মীদের সামাজিক গণমাধ্যমে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায় কমপক্ষে ৪০টি বাঘশাবকের মৃতদেহ ফ্লোরে রাখা আছে। মৃত্যুর সময় শাবকগুলোর বয়স সর্বোচ্চ ২/৩ দিন হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্নেল মেউংসুখুম। এখনো জানা যায়নি, কিভাবে এই শাবকগুলো মারা গেছে।

নিজেদের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত এই মন্দিরের বিবৃতিতে বলা হয়, মন্দিরের বাঘগুলোর মৃত্যুর হার তুলনামূলকভাবে অনেক কম। ২০১০ সাল পর্যন্ত মৃত বাঘের দেহ পুড়িয়ে ফেলা হত। তবে কেন হিমাগারে মৃতশাবক রাখা হচ্ছিল সেই বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। শুধু বাঘ নয় বন্য শুয়োরসহ বিভিন্ন পশুর অন্ত্র সহ বিভিন্ন অঙ্গ উদ্ধার করা হয়েছে মন্দিরের হিমাগার থেকে।

অভিযানের সময় থেকে কাঞ্চাবুরির জনপ্রিয় এই পর্যটক এলাকা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।  থাইল্যান্ডের জাতীয় উদ্যানের কর্মকর্তা আদিসর্ন নুচদামরং বলেন, মৃতশাবকগুলোর হয়তো কোনো মূল্য রয়েছে মন্দিরের কাছে, তবে কিসের সেটা আমি বলতে পারবো না। বাঘের হাড় ও দেহ চীনের ঐতিহ্যবাহী ঔষধ তৈরিতে ব্যবহার হয়।

Top