You are here
Home > প্রবাস > পেনসিলভানিয়ায় বাংলাদেশী রেষ্টুরেন্ট ‘মারুস হালাল ক্যুইজিন’ উদ্বোধন

পেনসিলভানিয়ায় বাংলাদেশী রেষ্টুরেন্ট ‘মারুস হালাল ক্যুইজিন’ উদ্বোধন

পেনসিলভানিয়ায় বাংলাদেশী রেষ্টুরেন্ট ‘মারুস হালাল ক্যুইজিন’ উদ্বোধন

তৈয়বুর রহমান টনি পেনসিলভানিয়া: যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য পেলসিলভেনিয়ার ব্যস্ততম বাণিজ্যিক এবং অভিজাত এলাকা আপার ডারভী’র ৮৮ সাউথ, ৬৯ স্ট্রীটে অত্যান্ত জাকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে গত শুক্রবার ২০ মে বাদ জুম্মা বাংলাদেশী মালিকাধীন প্রতিষ্ঠান “মারুস হালাল ক্যুইজিনে”র উদ্বোধন করা হয়। রেষ্টেুরেন্টটির উদ্বোধন উপলক্ষ্যে গত শুক্রবার ২০ মে বাদ জুম্মা মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। আল্লাহর রহমত কামনায় প্রথমে পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত পাঠ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় স্হানীয় আল-মদিনা মসজিদে। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন স্হানীয় আল-মদিনা মসজিদের ইমাম ইফজুর রহমান।

শুক্রবার জুম্মা নামাজের পর লাল ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে মারুস হালাল ক্যুইজিনের উদ্বোধন করেন আপার ডারভী কাউন্সিলমেন শেখ এম সিদ্দিকী। এই সময় নিউ ইয়র্ক ও পেনসিলভানিয়ায় অবস্হিত বিপুল সংখ্যক কমিউিনিটি নেতৃবৃন্দও নিউজ ও প্রিন্ট মিডিয়ার কর্মকর্তাসহ অনেকেই উপস্হিত ছিলেন।

পরে আপার ডারভী টাউনসীপ মেয়র থমাস এন মিকজী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। তিনি বলেন এই এলাকাটি পেলসিলভেনিয়ার অন্যতম ব্যস্ততম এলাকা। মেয়র থমাস এন মিকজী অত্যন্ত আনন্দ প্রকাশ করেন এই রকম একটি ব্যস্ত এলাকায় এশীয়ান খাবারের দোকান খোলার জন্য। তিনি বলেন এখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশীয় লোকজনের পাশাপাশী বহু এশিয়ান লোকজন বসবাস করেন। তিনি এই প্রতিষ্ঠানটির উত্তর উত্তর সাফ্যল্য কামনা করেন এবং আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান তাকে আমন্ত্রন জানানোর জন্য।

সবশেষে আমন্ত্রীত অতিথীদের রেষ্ট্রুরেন্টের তৈরী সুসাদ্ধু খাবার পরিবেশন করা হয়। অতিথীরা প্রধান সেফ অগাষ্টিন গোমেজ ও অন্যান্যদের তৈরী খাবারের ভূয়ষী প্রশংসা করেন। মারুস হালাল কুজিনের কর্ণধার এ কে এম রেজাউল করিম, জিয়াউদ্দিন আহমেদ ও অগাষ্টিন গোমেজ আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জানান এবং প্রতিষ্ঠানটির সাফল্য কামনা করে সবার কাছে দোয়া ও আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রতিবেদকে কর্ণধাররা জানান মারুস হালাল ক্যুইজিন প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত্য খোলা থাকবে। এখানে দেশীয়, চাইনিজ ও আমেরিকান সব ধরনের খাবার পাওয়া যাবে।হালাল ব্যবসার মাধ্যমে নিজের ভাগ্য উন্নয়নের পাশাপাশি সামাজিক উন্নয়নে অগ্রনী ভূমিকা রাখতে পারলে আমাদের কষ্ট সফল হবে। নিরাপত্তা, গুণগত মান এবং সুন্দর পরিবেশ বজায় রাখলে যে কোন গ্রাহক মারুস হালাল কুজিনের আসবে।তারা আরোও বলেন সকলের উৎসাহ অনুপ্রেরণা ও সার্বিক সহযোগিতাই আমাদের আগামী দিনের চলার পথের পাথেয়। ব্যতিক্রমী এই নামটির সাথে সমন্বয় রেখে এর খাবার মানও অন্যান্য রেষ্টুরেন্টের চেয়ে ব্যতিক্রমী এবং সুলভ মূল্যে হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এই রেষ্টুরেন্টের খাবার হালাল হবে এবং নিরিবিলি পরিবেশে স্বপরিবারে গ্রাহকরা রুচি সম্মত খাকার খেতে পরবেন। রমজানের সময় রকমারী ইফতারের ব্যবস্হা করা হবে। রেষ্টেুরেন্টে থাকবে খাবারের ডেলিভারী ব্যবস্থাও। সপ্তাহের সাত দিনই রেষ্টুরেন্টটি খোলা থাকবে বলে তিনি জানান। যোগাযোগের নাম্বার:-৪৮৪-৪৬৬-৪৩১৩

Top