You are here
Home > অবাক-বিস্ময় > ভারতে ৭ কেজি ওজনের মেয়ে শিশুর জন্ম

ভারতে ৭ কেজি ওজনের মেয়ে শিশুর জন্ম

ভারতে ৭ কেজি ওজনের মেয়ে শিশুর জন্ম

সাধারণত জন্মের সময় কোনো ভারতীয় শিশুর ওজন থাকে আড়াই থেকে সাড়ে তিন কেজি। সেখানে ভারতে এক মেয়েশিশুর জন্ম হয়েছে, যার ওজন ১৫ পাউন্ড বা ছয় কেজি ৮০০ গ্রাম। একে স্মরণকালের মধ্যে জন্ম নেওয়া সবচেয়ে ভারী শিশু বলে দাবি করেছেন ভারতের চিকিৎসকরা।

কর্ণাটকের একটি সরকারি হাসপাতালে জন্ম হয় মেয়ে নবজাতকটির। তার নাম এখনো রাখা হয়নি। ওই নবজাতকের মায়ের নাম নন্দিনী (১৯)।

স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ভেঙ্কটেশ রাজু বলেন, ‘আমার ২৫ বছরের কর্মজীবনে এত বড় নবজাতক আর দেখিনি। এটা অলৌকিক ঘটনার মতো। আমার ধারণা, সে শুধু ভারতেরই নয়, বরং বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ওজনের নবজাতক।’

তবে চিকিৎসকেরা ওই শিশুর মা নন্দিনীকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। কারণ, নন্দিনীর ওজন ৯৪ কেজি এবং তিনি ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত। তবে আশার কথা হলো, শিশুটি পুরোপুরি সুস্থ আছে। তার শরীরে সুগার ও থাইরয়েডের স্তরও অস্বাভাবিক নয়। পূর্ণিমা মানু নামের আরেক চিকিৎসক বলেন, সার্জারির মাধ্যমে ওই নবজাতককে পৃথিবীর আলোয় আনা হয়েছে। অস্ত্রোপচারে সময় লেগেছে আধা ঘণ্টা। নবজাতকটি সত্যিই অনেক বড় এবং সুন্দর হয়েছে।

গিনেস রেকর্ড অনুযায়ী, বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ওজনের নবজাতকের ওজন ছিল ১০ দশমিক ৩ কেজি। ১৯৫৫ সালে ওই ছেলে নবজাতকটি জন্ম নিয়েছিল।

Top