You are here
Home > প্রযুক্তি > জাতীয় হ্যাকাথনে সহযোগী ফেসবুক

জাতীয় হ্যাকাথনে সহযোগী ফেসবুক

জাতীয় হ্যাকাথনে সহযোগী ফেসবুক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটি) আয়োজনে টানা দ্বিতীয়বারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে “জাতীয় হ্যকাথন-২০১৬”।

আগামী ৬ থেকে ৭ এপ্রিল মিরপুরের পুলিশ স্টাফ কলেজ (পিএসসি) কনভেনশ হলে জাতীয় সমস্যার প্রযুক্তিভিত্তিক সমাধানের জন্য প্রোগ্রামারদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে এই হ্যকাথন। আর এর সহযোগী হিসেবে অংশীদার হলো সামাজিক যোগাযোগের সেরা মাধ্যম ফেসবুক।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে হ্যাকাথনের ১০ বিজয়ী দলের প্রত্যেককে আশি হাজার ডলার করে সর্বমোট আট লাখ ডলার মূল্যমানের এফবি স্টার্ট প্যাকেজ পুরস্কার দেয়া হবে।

আইসিটি বিভাগ জানিয়েছে যে, এই পুরস্কারের পাশাপাশি বিজয়ী ১০টি দলকে হ্যাকাথন পরবর্তী মেন্টরশিপ সহায়তা প্রদান ও তাদের উদ্ভাবন প্রচারণায় সহায়তা প্রদান করবে ফেসবুক।

সারা বিশ্বের মোবাইল উদ্ভাবনী উদ্যোগগুলোকে উৎসাহিত করতে ফেসবুকের এই উদ্যোগ চালু রয়েছে। এবার বাংলাদেশের মোবাইল উদ্ভাবনগুলোকে বিশ্বব্যাপী সাফল্য অর্জনে সহায়তা করতে ফেসবুক যুক্ত হলো জাতীয় হ্যাকাথনে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন পরিকল্পনা (এসডিজি)-এর নির্বাচিত ১০টি লক্ষ অর্জনের জন্য আয়োজিত হচ্ছে এবারের জাতীয় হ্যাকাথন। সারা দেশের সেরা ডেভেলপার, ইউএক্স ডিজাইনার, মোবাইল অ্যাপ ডেভেলপার, সফটওয়ার নির্মাতারা একত্রিত হবে বছরের বড় এই কোডিং ফেস্টিভালে।

এসডিজির ১০ টি লক্ষ অর্জনে বিদ্যমান প্রতিবন্ধকতাগুলোকে প্রযুক্তি দিয়ে মোকাবিলা করতে তরুণ প্রযুক্তিবিদরা টানা ৩৬ ঘণ্টায় নতুন নতুন উদ্ভাবনে অংশ নেবেন। সেরা উদ্ভাবনগুলোকে বাস্তাবায়নের জন্য আইসিটি বিভাগ ভবিষ্যতে সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতা করবে।

ইতিমধ্যে ৫৫৩ টি দলের ৩ হাজারের বেশী অংশগ্রহণকারী জাতীয় হাকাথনে অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করেছে। এদের মধ্যে নির্বাচিত ২৫০ টি দল চূড়ান্তভাবে জাতীয় হ্যাকাথনে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

অংশগ্রহণকারীদের উদ্ভাবনী কার্যক্রমে সহায়তা করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট ১০ টি মন্ত্রণালয়ের ৪৪ জন বিশেষজ্ঞ নিয়ে জাতীয় হ্যাকাথনের ডোমেইন এক্সপার্ট দল ও ৯০ জনের টেক-মেন্টর দল প্রস্তুত করা হয়েছে। আরো বিস্তারিত জানা যাবে http://hackathon.ictd.gov.bd/ ঠিকানায়।

Top