You are here
Home > খেলা > মুস্তাফিজের বাড়িতে এখন উৎসব করে দেখা হয় আইপিএল

মুস্তাফিজের বাড়িতে এখন উৎসব করে দেখা হয় আইপিএল

মুস্তাফিজের বাড়িতে এখন উৎসব করে দেখা হয় আইপিএল

ঘরের ছেলে খেলছে ভারতের মাটিতে। আইপিএলে তার বোলিং ঝলক মুগ্ধ করছে পুরো দেশসহ বিশ্ব ক্রিকেটাঙ্গনকে। এমন একটা আনন্দ-ক্ষণ উপভোগ থেকে কি-না বঞ্চিত স্বয়ং মুস্তাফিজুর রহমানের পরিবার! বিদ্যুৎ নেই বলে ‘কাটার-মাস্টার’ ছেলের প্রথম তিনটি ম্যাচ দেখাই হয়নি বাবা আবুল কাশেমের।

তবে আইপিএলে হৈচৈ ফেলে দেওয়া মুস্তাফিজের খেলা দেখার জন্য বিদ্যুৎ সমস্যা কি বড় বাধা? মুস্তাফিজের ভাই মুখলেসুর রহমান প্রজেক্টর নিয়ে এসেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ম্যাচের দিন। বাড়ির সবাই মিলে উৎসবের আবহে দেখছেন মুস্তাফিজের বোলিং কীর্তি। যেমনটা দেখবেন আজও, মুস্তাফিজদের খেলা এবার গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে।

খেলা দেখেন আর আনন্দে আপ্লুত হন মুস্তাফিজের ভাই মুখলেসুর, ‘১২ বছর বয়স থেকেই ও দারুণ বোলিং করে। তবে এতটা যে ভালো, তা কখনোই ভাবিনি।’ এই ভাইয়ের বাইকের পেছনে চড়েই সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রাম থেকে অনুশীলন করতে যেতেন ৪০ কিলোমিটার দূরের শহরে। হায়দরাবাদ থেকে ফোনের সাক্ষাৎকারে বার্তা সংস্থা এএফফির সঙ্গে সে স্মৃতিচারণা করছিলেন মুস্তাফিজও, ‘প্রতিদিন ভাইয়া আমাকে সাতক্ষীরায় নিয়ে যেত, আবার গ্রামে নিয়ে আসত। অন্য সময় স্কুল মাঠেও অনুশীলন করতাম।’

সাতক্ষীরার সেই তরুণ মুস্তাফিজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পা রেখেছেন গত বছরের এপ্রিলে। অভিষেক ওয়ানডেতে ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেট নেওয়ার পরই চলে আসেন পাদপ্রদীপের আলোয়। বাঁহাতি পেসের সঙ্গে অফ কাটারে আটকে ধরছেন বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানদের। এবারের আইপিএলে এবি ডি ভিলিয়ার্স, বিরাট কোহলিদেরও বিভ্রান্ত করছেন বোলিং জাদুতে। এ মুহূর্তে ৭ ম্যাচে নিয়েছেন ৮ উইকেট। মুস্তাফিজকে ‘ফিজ’ নাম দিয়ে হায়দরাবাদের কোচ-কর্মকর্তা-সতীর্থরা ভুগছেন ফিজ-ম্যানিয়ায়। শিখতে চাইছেন বাংলা ভাষাও। ভিনদেশে ছেলের এসব কীর্তির ঢেউ এসে পড়ছে দেশেও।

প্রতিদিনই বাড়িতে আসছেন শুভাকাঙ্ক্ষীরা। চিঠি আসছে অনেক মেয়ের কাছ থেকেও। এ বিষয়টা নিয়ে খানিকটা বিরক্ত মুস্তাফিজের বাবা কাশেম, ‘মেয়েরা চিঠি পাঠিয়ে ওর ফোন নম্বর চায়। আমি পোস্ট অফিসে গিয়ে বলে এসেছি এসব চিঠি যেন বাড়িতে না দেওয়া হয়। সে এখনও ছোট, তার খেলার মধ্যে মনোযোগ দেওয়া দরকার।’ গত মাসের শুরুর দিকে বাবাকে একটা গাড়ি কিনে দিয়েছেন মুস্তাফিজ। সামনে আইপিএল থেকে ফিরে আরও একটা গাড়ি কেনার কথা জানিয়েছিলেন কয়েকদিন আগে ভারতীয় একটি দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে। আইপিএল শেষ করে ইংল্যান্ডের কাউন্টিতে সাসেক্সের হয়ে খেলার কথা আছে মুস্তাফিজের। যেখানেই খেলা হোক, বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরেই আনন্দিত মুস্তাফিজ, ‘আমি চাই সবসময়ই আমার দেশের পতাকা উঁচু হয়ে থাক, শুধু ক্রিকেটে নয়, যে কোনো খেলাতেই।

Top