You are here
Home > জাতীয় > সাইফুরসের নাম দেখে অনুষ্ঠান ত্যাগ আইনমন্ত্রী ও ঢাবি উপাচার্যের

সাইফুরসের নাম দেখে অনুষ্ঠান ত্যাগ আইনমন্ত্রী ও ঢাবি উপাচার্যের

সাইফুরসের নাম দেখে অনুষ্ঠান ত্যাগ আইনমন্ত্রী ও ঢাবি উপাচার্যের

‘বিতর্কিত’ সাইফুর’স কোচিং সেন্টারের সহযোগিতায় আয়োজিত একটি অনুষ্ঠান ত্যাগ করেছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) তাদের সাগর-রুনি মিলনায়তনে প্রাইমারি এডুকেশন সার্টিফিকেট (পিইসি) এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আসন গ্রহণের পরপরই অনুষ্ঠানের সহযোগিতায় থাকা সাইফুর’স কোচিংয়ের নাম নজরে এলে প্রধান অতিথি আইনমন্ত্রী ও বিশেষ অতিথি ঢাবি উপাচার্য আপত্তি জানিয়ে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘সাইফুরসের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো কোচিং বাণিজ্যের মাধ্যমে শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে ফেলেছে। তাই তাদের সহযোগিতায় কোনো অনুষ্ঠানে আমরা সম্পৃক্ত হতে পারি না বলেই অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেছি।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের অর্থ চুরির পর দক্ষ ‘হ্যাকার তৈরির বিজ্ঞাপন’ দিয়ে গত মার্চে ব্যাপক সমালোচিত হয় সাইফুর’স।

ডিআরইউ সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ বলেন, ‘সাইফুর’স নিয়ে সাম্প্রতিক সমালোচনার আগেই এ অনুষ্ঠানে সহযোগিতার বিষয়ে তাদের সঙ্গে কথা হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন থেকে সহায়তা গ্রহণের বিষয়ে ডিআরইউ সতর্কতা অবলম্বন করবে।’

গুরুত্বপূর্ণ দুই অতিথি চলে যাওয়ার পর সাইফুরসের চেয়ারম্যান শামস আরা খান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুর রহমান খানকে নিয়ে অনুষ্ঠান শেষ করে ডিআরইউ।

কৃতিত্বপূর্ণ ফল অর্জনের জন্য অনুষ্ঠানে পিইসিতে ২৫ এবং জেএসসিতে ১৫ শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা ও বৃত্তি দেওয়া হয়।

ডিআরইউ সভাপতি জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ডিআরইউর সাবেক সভাপতি শাহেদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, ডিইউজে (একাংশ) সাবেক সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ, ডিআরইউ যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন ও কল্যাণ সম্পাদক জিলানি মিলটন।

Top