You are here
Home > জাতীয় > ‘জনগণ মনে করে সরকারের ইশারায় হচ্ছে গুম-খুন’

‘জনগণ মনে করে সরকারের ইশারায় হচ্ছে গুম-খুন’

জনগণ মনে করে সরকারের ইশারায় হচ্ছে গুম-খুন

বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, সারা দেশে গুম-খুন হচ্ছে তা সব কিছু সরকারের ইশারায় হচ্ছে বলে জনগণ মনে করে। সরকারের সকল চক্রান্ত ও অপকর্ম মোকাবিলায় দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, দেশে গুম-খুন চলছে। এভাবে গুম-খুন চলতে দেয়া যায় না। আপনারা সংগঠিত আছেন। আরো সংগঠিত হন। নেতাকর্মীদেও উদ্দেশ্য তিনি

তিনি আরো বলেন, পদের জন্য গলা না শুকিয়ে জনগণের জন্য গলা শুকান। তাহলে গণতন্ত্র ও দেশ রক্ষা পাবে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচ তলায় বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের রোগমুক্তি এবং ঝিনাইদহ থেকে নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম শহীদুল ইসলাম মাষ্টার এর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে খুলনা বিভাগের বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন।

তিনি বলেন, গুম-খুনের সাথে নাকী বিএনপি-জামায়াত জড়িত। তাহলে প্রধানমন্ত্রী কি বসে বসে ঘোড়ার ঘাস কাটেন? পুলিশ বাহিনী কি করেন? এসব চাপাবাজি জনগণ ভালভাবেই বুঝেন, সরকারের উদ্দেশ্য কি? কোন ঘটনা ঘটলেই সরকার বলে দেয় বিএনপি জামায়াত জড়িত।

বিদ্যুৎ প্রসঙ্গে বিএনপির এই নেতা বলেন, সরকারের এত মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কোথায় গেলো। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলো। তাহলে জনগণ বিদ্যুৎ পায় না কেন? ঢাকা শহরের বিদ্যুতের অবস্থা যদি এই হয় তাহলে গ্রাম-গঞ্জের অবস্থা কি তা সহজেই অনুমান করা যায়। কৃষকেরা বিদ্যুতের জন্য সেচ কাজ করতে পারে না।

গয়েশ্বর বলেন, সরকারের দায়িত্ব পালনের ব্যর্থতা বিরোধী দলের উপর চাপানো জনগণ মেনে নেয় না। গণতন্ত্র ও দেশ রক্ষার জন্য যারা জীবন দিলেন আমরা যারা আছি গণতন্ত্র রক্ষার জন্য কাজ করলে তাদেও আত্ম শান্তি পাবে। দলের জন্য যারা রক্ত ঝড়িয়ে চলে গেলেন দল জানে না তাদের জন্য করার কিছু আছে কিনা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা অত্যাচারী সরকারের অধীনে রাজনীতি করছি। দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষা করার জন্য আন্দোলন চলছে।  তরিকুল ইসলাম একজন আপদমস্তক রাজনীতিবিদ। আমরা দোয়া ও প্রত্যাশা করি তরিকুল ইসলাম দ্রুত সুস্থ্য হয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিবেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা অত্যাচারী সরকারের অধীনে রাজনীতি করছি। দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষা করার জন্য আন্দোলন চলছে।  তরিকুল ইসলাম একজন আপদমস্তক রাজনীতিবিদ। আমরা দোয়া ও প্রত্যাশা করি তরিকুল ইসলাম দ্রুত সুস্থ্য হয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিবেন।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব মো. শাহজাহান, অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, সহ দফতর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম টিপু, নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদার, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, যুবদলের যুগ্ম-সম্পাদক অমলেন্দু দাস অপু, ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আমিরুজ্জামান খান শিমুল, মির্জা ইয়াছিন আলী, ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেলিনা সুলতানা নিশিতা, সহ সাধারণ সম্পাদক আরিফা সুলতানা রুমা, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আফরোজা খানম নাসরিন, দফতর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারীসহ বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Top