You are here
Home > আন্তর্জাতিক > মাকে বুকের দুধ নিয়ে উড়তে দিল না এয়ারপোর্ট!

মাকে বুকের দুধ নিয়ে উড়তে দিল না এয়ারপোর্ট!

মাকে বুকের দুধ নিয়ে উড়তে দিল না এয়ারপোর্ট

বাচ্চা সঙ্গে নেই। তবুও বুকের দুধ সংরক্ষণ করে বিমান ধরবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আমেরিকার জেসিকা কোকলি মার্টিনেজ। কিন্তু বিমানবন্দরের কর্মীরা তাঁকে সংরক্ষিত ব্রেস্টমিল্ক ফেলে দিতে বাধ্য করেন। অপমানিত ও অসহায় ওই মা সোশ্যালমিডিয়ায় খোলা চিঠি লিখলেন বিমানবন্দর কর্তপক্ষের বিরুদ্ধে।

চাকুরিরতা ওই মহিলার দুই সন্তান। ছোটটির বয়স ৮ মাস। নানা জায়গা তাঁকে ট্রাভেল করতে হয়। ফলে বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানো হয়ে ওঠে না। তাই তিনি বাচ্চার জন্য ব্রেস্টমিল্ক সংরক্ষণ করে রাখেন। এবারও তাই করেছিলেন। কিন্তু হিথরো এয়ারপোর্ট থেকে বিমানে ওঠার সময় তাঁর কাছ থেকে ওই সংরক্ষিত দুধ কেড়ে নেওয়া হয়।

কর্তপক্ষের দাবি, বিমানবন্দরের নিরাপত্তার খাতিরে ও কিছু নিয়ম অনুযায়ী, বিমানে তরল পদার্থ বহনের বিধিনিষেধ রয়েছে। একজন যাত্রী কৌটো, বোতল বা স্বচ্ছ প্যাকেটে ১০০ মিলিলিটার তরল পদার্থ বহল করতে পারবে। শিশুদের ক্ষেত্রে নিয়ম ব্যতিক্রম রয়েছে। তবে উড়ানের সময় মায়ের সঙ্গে থাকতে হবে শিশুকেও। এদিকে, জেসিকার কাছে ছিল ১৪.৮ লিটার ব্রেস্ট মিল্ক। সঙ্গে শিশুটিও ছিল না। তাই নিয়ম অনুযায়ী, সংরক্ষিত ব্রেস্ট মিল্ককে বাজেয়াপ্ত করে বিমানবন্দর।

ফেসবুকে জেসিকা এই বিধিনিষেধকে ধিক্কার জানিয়ে লিখেছেন, সন্তানের দুসপ্তাহের মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়েছে বিমান কর্তৃপক্ষ। এটি খুবই অনৈতিক। একজন মায়ের কাছে এই ব্যাপারটা কতটা যন্ত্রণাদায়ক, তা একজন মা-ই বুঝতে পারবেন।

Top