You are here
Home > সারাদেশ > বিক্রি হয়ে গেল বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী নবাব প্যালেস

বিক্রি হয়ে গেল বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী নবাব প্যালেস

বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী নবাব প্যালেস

সরকারিভাবে অধিগ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসন ও প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের চিঠি চালাচালির মাঝেই বিক্রি হয়ে গেল বগুড়ার ঐতিহ্যবাহী নবাব প্যালেস। কঠোর গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ২ ছেলে সৈয়দ হাম্মাদ আলী ও সৈয়দ হামদে আলী প্যালেসটি বিক্রি করে দেন।

নাগরিক সমাজের অভিযোগ, জেলা প্রশাসন ও প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের অবহেলার কারণে বাড়িটি বিক্রি হয়ে গেছে। তবে, বাড়িটি রক্ষায় পদক্ষেপের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

বগুড়ার জমিদার আবদুস সোবহান চৌধুরী ১৮৯৪ সালে নীলকরদের কাছ থেকে কিনে নেন এ বাড়িটি। তার উত্তরসূরি পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী চৌধুরীও দীর্ঘদিন বসবাস করেছেন এই বাড়িতে। স্বাধীনতার পর কয়েক দশক পরিত্যক্ত থাকলেও ১৯৯৮ সালে বাড়িটিকে ঘিরে মোহাম্মদ আলী প্যালেস মিউজিয়াম গড়ে তোলেন উত্তরসূরিরা।

গত বছর বিক্রির গুঞ্জন উঠলে প্যালেসটি রক্ষায় সরকারি পদক্ষেপের দাবি ওঠে। নাগরিক সমাজের অভিযোগ, জেলা প্রশাসন ও প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের অবহেলার কারণে বাড়িটি গত ১৭ এপ্রিল বিক্রি হয়ে গেছে।

তবে, অবহেলার অভিযোগ অস্বীকার করে ঐতিহ্যবাহী এ বাড়িটি রক্ষায় পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দিন। অবশ্য, সরকার চাইলে বাড়িটির মালিকানা হস্তান্তরে সম্মত আছেন বলে জানিয়েছেন ক্রেতা শাহ সুলতান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল গফুর।

২শ’ বছরের পুরনো এক একর ৫৫ শতক জমির ওপর নির্মিত এ নবাব প্যালেসে রয়েছে ১টি দোতলা ভবন, জাদুঘর ও শিশু বিনোদনের ২০টি রাইড।

Top