You are here
Home > বিনোদন > মুভি রিভিউ : ফ্যান (FAN)

মুভি রিভিউ : ফ্যান (FAN)

মুভি রিভিউ : ফ্যান (FAN)

এই সিনেমায় দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করছেন শাহরুখ। একটি সুপারস্টার আরিয়ান খান্না ও অন্যটি তাঁর ফ্যান গৌরব। এই গৌরব নিজেকে আরিয়ান খান্নার সবচেয়ে বড় ফ্যান বলে মনে করে। রীতিমতো পুজো করে সুপারস্টার আরিয়ানকে। তাঁকে একঝলক চোখের দেখা দেখতে ও জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে সে ঠিক করে মুম্বাই আসবে।

আরিয়ান খান্নার সঙ্গে দেখা করার স্বপ্নপূরণের আগের মুহূর্ত পর্যন্ত সবকিছু ঠিকই ছিল। তবে মুম্বাই আসার পর আরিয়ান খান্নার সঙ্গে গৌরব দেখা করতে চেয়েও পারেনি। গৌরব তাঁর সবচেয়ে বড় ফ্যান, এটা জেনেও সুপারস্টার আরিয়ান তাঁর সঙ্গে দেখা করতে রাজি হন না। এরপরই স্বপ্ন ও মোহ দুটোই ভঙ্গ হয় গৌরবের। এরপর থেকেই সিনেমা অন্যদিকে মোড় নেয়। ভক্ত গৌরবের জন্য বিপদে পড়তে হয় সুপারস্টার আরিয়ান খান্নাকে। শেষে অন্য দশটা ছবির মতই হিরো-অ্যান্টি হিরোর মারামারির মধ্য দিয়ে শেষ হয় সিনেমার গল্প। যাতে ফ্যান গৌরব মারা যায়, অবশ্য মারা যায় না বলে আত্নহত্যা বলাই যুক্তিযুক্ত হবে।

এই ছবিতে খুব সচেতনভাবে একজন সফল হিরোর নাম ‘খান’ (মুসলমান নাম বলে হয়ত) থেকে ‘খান্না’ করাটা খুব কানে বেঁজেছে। তার উপর ওই আরিয়ান খান্নার ফ্যান গৌরব দেখতে ঠিক তার মতই। যা গল্পের বিশ্বাস যোগ্যতাকে অনেকখানি কমিয়েছে। কারন একজন সুপারস্টারের কয়জন ফ্যান দেখতে ঠিক তার মতই হয়।

পুরো ছবিটা দু ঘণ্টা ১৮ মিনিটের। এর মধ্যে ছবির অনেক খানি অংশ জুড়ে শাহরুখ খান শুধু দৌড়লেন! আগে গৌরব, পিছনে আরিয়ান খান্না। আর ফ্যান হিসেবে আরিয়ান খান্নাকে নিয়ে ভক্তের যে পাগলামি থাকা উচিত ছিল তাও অনুপস্থিত গৌরবের চরিত্রে। ছবিতে মনে হয়েছে সেই যেন প্যারালাল হিরো।

সবচেয়ে আজব ঠেকেছে, যিনি এত বড় স্টার আরিয়ান খান্না। যাঁকে দেখতে জন্মদিনে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। সেই মানুষটার এক ডামি গোটা মাদাম তুসোর মিউজিয়ামে হুলস্থুল কাণ্ড ঘটাল। বন্দুক ঠেকাল। তার পরিবর্তে লন্ডন পুলিশ কিনা ধরল, আরিয়ান খান্নাকেই!

সবশেষে বলা যায়, শাহরুখ খানের ছবি বলে হয়ত ছবিটা ভালোই ব্যবসা করে যাবে। কিন্তু ছবিটির চিত্রনাট্যের দুর্বলতা কি আর কখনোই পূরণ করা সম্ভব হবে?

Top