You are here
Home > আন্তর্জাতিক > সমীক্ষায় সবচেয়ে খারাপ পেশার তকমা জুটেছে সাংবাদিকতার কপালে!

সমীক্ষায় সবচেয়ে খারাপ পেশার তকমা জুটেছে সাংবাদিকতার কপালে!

সমীক্ষায় সবচেয়ে খারাপ পেশার তকমা জুটেছে সাংবাদিকতার কপালে!

যত খারাপ পরিস্থিতিই হোক।যুদ্ধ, কার্ফু, দুর্গম পথ, প্রতিকূল আবহাওয়া এসব কিছুর মধ্যেই খবর সংগ্রহের জন্য তাঁরা সর্বদাই নিবেদিত প্রাণ। প্রতি মুহূর্তে চ্যালেঞ্জ। নিশ্চিন্ত গৃহকোণের সুখ তাঁদের চাকরিতে নেই। হ্যাঁ, কথা হচ্ছে সাংবাদিকদের। নতুন প্রজন্মের কেউ যদি সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেওয়ার স্বপ্ন দেখে (বিশেষ করে খবরের কাগজে), তাহলে তাদের জন্য সতর্কবার্তা, বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ চাকরির মধ্যে এক নম্বরে স্থান পেয়েছে সংবাদপত্রে রিপোর্টারের চাকরি। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষার রিপোর্টের দাবি, বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ পেশা নাকি সাংবাদিকতা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেরিয়ারকাস্ট নামে একটি জব ওয়েবসাইট সম্প্রতি বিশ্বের ২০০টি পেশার উপর একটি সমীক্ষা চালায়। কাজের পরিবেশ, আয়, কাজের চাপ, মানসিক চাপ সব কিছুর ভিত্তিতে সার্বিক ভাবে র‌্যাংক দেওয়া হয় বিভিন্ন পেশাকে। তাতে আয়, কাজের পরিবেশ, চাপ, অবসাদসহ সব কিছুতেই সবচেয়ে খারাপ পেশার তকমা জুটেছে সাংবাদিকতার। আর সবচেয়ে ভালো পেশায় এক নম্বরে রয়েছে বিজ্ঞানী বা গবেষণা।

সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, ‘সাংবাদিকদের বেতন ক্রমেই কমছে। গত দশ বছরে গোটা বিশ্বেই খবরের কাগজের বিক্রি কমেছে। বিজ্ঞাপন বাবদ আয় কমেছে। সেই সঙ্গে লাভও কমেছে কোম্পানিগুলির। যার প্রভাব পড়েছে সাংবাদিকদের আয়েও। এদিকে আয় কমলেও, কাজের চাপ, বিপদের আশঙ্কা একটুও কমেনি।’

গবেষণা ছাড়াও, সুখের পেশায় প্রথমসারিতে রয়েছে, মেডিক্যাল স্টেনোগ্রাফার, ইনফরমেশন সিকিউরিটি অ্যানালিস্টের মতো পেশাও। সমীক্ষার রিপোর্টে, সাংবাদিকতার পর সবচেয়ে খারাপ প্রথম ১০টি পেশার মধ্যে রয়েছে, ডিস্ক জকি, সেলসম্যান, ট্যাক্সি ড্রাইভার ইত্যাদি।

Top